• ঢাকা
  • বৃহঃস্পতিবার , ২০ জুন ২০২৪ , রাত ০৯:১৬
ব্রেকিং নিউজ
হোম / জেলা

পটুয়াখালী উপজেলা চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মিজানুর রহমান মনির

রিপোর্টার : স্টাফ রিপোর্টার :

৬৫০ বার দেখা হয়েছে ।

পটুয়াখালী উপজেলা চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মিজানুর রহমান মনির ই-পেপার/প্রিন্ট ভিউ

পটুয়াখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন সমাজসেবক , শিক্ষানুরাগী, রাজনীতিবিদ ,একবারের সফল সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জনাব মিজানুর রহমান মনির ।

তফসিল ঘোষণার পর থেকে পটুয়াখালী সদরে কে হচ্ছেন উপজেলা চেয়ারম্যান, তা নিয়ে সর্বত্র চলছে আলোচনা। উপজেলায়,ইউনিয়নে, গ্রাম মহাল্লায় বইছে নির্বাচনী হাওয়া। যোগ্য প্রার্থী বেছে নেওয়ার জন্য ভোটাররাও বেশ উৎসাহী। এরই মধ্যে প্রার্থীরা বিভিন্ন এলাকায় শুভেচ্ছা বিনিময় ও ভোট প্রার্থনা করছেন।

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে তিনি একজন প্রার্থী। যুব সমাজের অহংকার, গরীব, দুস্থ অসহায় মানুষের আশ্রয়স্থল দানবীর খ্যাতিয়মান সুশিক্ষিত, মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মনির এবারও অন্যান্য সকল প্রার্থীদের চেয়ে মাঠ পর্যায়ে জনপ্রিয়তায় শীর্ষে আছেন।

তিনি জনপ্রিয়তায় শীর্ষে থেকেও তার বিজয় নিশ্চিত করতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল সহযোগী অঙ্গসংগঠন ও স্হানীয় ভোটারদের সাথে প্রতিদিনই শুভেচ্ছা বিনিময়,মতবিনিময় ও দোয়া চেয়ে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা ও উঠান বৈঠক চালাচ্ছেন। সরেজমিনে অত্র উপজেলা ঘুরে দেখা যায়, তিনি আগের মতোই বর্তমানেও পটুয়াখালী উপজেলার প্রতিটি ভোটারদের মুখে মুখে আলোচনায় শীর্ষ রয়েছেন।

পটুয়াখালী উপজেলা পরিষদের সাবেক এ ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলার সকল ওয়ার্ডের, সাধারণ অসহায়,খেটে খাওয়া হত-দরিদ্র মানুষের সুখে-দুঃখে পরিষদের অর্থায়নে ও নিজস্ব অর্থায়নেও পাশে দাঁড়ানোর পাশাপাশি উপজেলার যেকোনো মানুষের সর্বক্ষেত্রে সহযোগিতা করে গেছেন।যার ধারাবাহিকতায় বর্তমানে ও তিনি সামর্থ্য অনুযায়ী সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন ।

এছাড়াও তিনি একাধিক সামাজিক সেবামূলক কার্যক্রমে জড়িত। তিনি ছাত্র জীবন থেকেই নিজস্ব অর্থায়নে পর-উপকারী ছিলেন। বর্তমানেও উপজেলা আওয়ামী লীগ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগসহ তিনি সকল ইউনিয়নের সকলের সঙ্গে সু-সম্পর্ক বজায় রেখে সর্বপ্রকার সেবামূলক কর্মকান্ড চালিয়েছেন এবং চালিয়ে যাচ্ছেন। যেমন তার ব্যক্তিগত অর্থায়নে কাঁচা রাস্তা সংস্কার, করোনা কালে খাদ্য ও সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণসহ প্রতিবছরের ন্যায় পবিত্র ঈদে অসহায়দের সহযোগীতা এবং উপজেলার প্রতিটি মসজিদ, মন্দির পরিদর্শন ও আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন এবং মেধাবী ও দারিদ্র্য শিক্ষার্থীদের শিক্ষার গুনগত মানোন্নয়নে সদা অগ্রসর তিনি।শুধু তাই নয়,এ বছর ঘূর্ণিঝড় রেমালের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ সহায়তা দিয়ে পাশে থেকেছেন ।

সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মনির বলেন, বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যোগ্য কন্যা, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশরত্ন শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনা মেনে সবসময় উপজেলার সাধারণ মানুষের পাশে থেকে আওয়ামী সরকারের সকল সেবামূলক কাজে অংশগ্রহণ করে যাচ্ছি।

তিনি আরোও বলেন,স্মার্ট পটুয়াখালী বাস্তবায়নে আমি বদ্ধপরিকর। আমার বিশ্বাস আসন্ন নির্বাচনে ৯ই জুন জনগণ আনারস প্রতীকে ভোটের মাধ্যমে আমাকে উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত করবেন। আর আমি নির্বাচিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার গ্রামকে শহরে রূপান্তরিত করবো এবং সকল প্রকার প্রচেষ্টা বাস্তবায়নে কাজ করবো। যেমন গ্রামে উন্নয়নের ছোয়া পৌঁছে দিয়ে দুঃখ, দুর্দশা, ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত সমাজ গঠনে ভূমিকা রাখবো। আমি কখনোই নিজের উন্নয়নে নয় বরং পটুয়াখালীবাসীর উন্নয়নে কাজ করবো।

অতীত, বর্তমানে যেভাবে সকলের বিপদে ঝাঁপিয়ে পড়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছিলাম। ঠিক তেমনি ভাবে মানুষের পাশে থাকবো। সাধারণ মানুষের সম্ভাবনাময় স্বপ্নকে বাস্তবে রুপ দেয়ার জন্যই তৃণমূলের জনগণ দোয়া ও ব্যাপক সমর্থন করে যাচ্ছেন। এছাড়াও আমার মূল লক্ষ্যই হচ্ছে জনগণের ঘরে ঘরে নাগরিক সেবা পৌঁছে দেওয়া।স্মার্ট বাংলাদেশে স্মার্ট হবে পটুয়াখালী উপজেলা।


সারাদেশ

আরও পড়ুন