• ঢাকা
  • বৃহঃস্পতিবার , ২০ জুন ২০২৪ , রাত ০৯:১৯
ব্রেকিং নিউজ
হোম / জেলা

মোংলায় ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

রিপোর্টার : নিজস্ব প্রতিবেদক :

৭১ বার দেখা হয়েছে ।

মোংলায় ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার ই-পেপার/প্রিন্ট ভিউ

মোংলায় বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণ ও গোপনে ভিডিও ধারণ করে তা ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার অপরাধে সাইফুল নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হলে সোমবার দুপুরে কাইনমারী এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। বিকেলে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। 

পুলিশ ভুক্তভোগী নারী জানায়, মোংলা উপজেলার মিঠাখালী ইউনিয়নের আন্দারিয়া এলাকার তৈয়ব আলী হাজারীর ছেলে লম্পট সাইফুল হাজারীর সাথে একই এলাকার গামেন্টসকর্মী কিশোরীর পরিচয়ের পর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে তাকে বিয়ের আশ্বাসে বাসায় নিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে এবং গোপনে ভিডিও ধারণ করে বলে মামলায় উলে­খ করা হয়েছে। এক পর্যায় তাকে বিয়ে না করে মোবাইল ফোনে ধারণকৃত ভিডিওর ভয় দেখিয়ে দিনের পর দিন ধর্ষণ করে আসছিল বলে জানায় ওই কিশোরী। লম্পট সাইফুলের কথামত না চললে এবং তার চাহিদা পূরণ না করলে ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে ভাইরাল করে দেবে বলে হুমকি দিয়ে ধর্ষণ করতো সাইফুল। এছাড়াও ধারণকৃত ভিডিও’র ভয় দেখিয়ে ওই নারীর কাছে থেকে বেশ কিছু টাকাও হাতিয়ে নিয়েছে বলে জানায় ভুক্তভোগী। সব শেষ ধর্ষক সাইফুল ১২ মার্চ সন্ধ্যায় তার বাড়িতে ডেকে নেয় এবং পুনরায় তাকে ধর্ষণ করে। এ কথা কাউকে না বলার জন্য হুমকি দেয় এবং তাকে আরও ২০ হাজার টাকা তার নাম্বারে বিকাশ করতে বলে, না হয় ছবিগুলো ভাইরাল করে দিবে বলে হুমকি দেয়। এ টাকা না দেয়ায় কিশোরীর ফোনে ধারণকৃত ভিডিও ও কয়েকটি ছবি আসামির টিকটক ও হটসএ্যাপ নাম্বার দিয়ে বাদীর নাম্বারে পাঠিয়ে দেয়। এক পর্যায় এ ঘটনা নিয়ে বাগেরহাট আদালতে মামলা করলে মামলাটি মোংলা থানাকে আমলে নেয়ার জন্য আদেশ প্রদান করেন। ২ জুন সাইফুলকে আসামি করে মোংলা থানায় মামলা দায়ের করা হয়। সোমবার দুপুরে তাকে গ্রেফতার করে বাগেরহাট জেল হাজতে পাঠায় পুলিশ। 

মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম আজিজুল ইসমলাম জানায়, এক গামেন্টসকর্মীকে মিথ্যা আশ্বাসে ধর্ষণ ও মোবাইলে ভিডিও ধারন করার অপরাধে তার বিরুদ্ধে আদালতের আদেশে মামলা হয়েছে। সোমবার তাকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।


ধর্ষন

মোংলা

বাগেরহাট

আরও পড়ুন